মেনু নির্বাচন করুন
আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়, রংপুর বিভাগ, রংপুর, খাদ্য অধিদপ্তরের আওতাধীন একটি বিভাগীয় অফিস। গুরুত্বপূর্ণএই কার্যালয়টি সেন্ট্রাল রোড, রংপুরে অবস্থিত। বিভাগীয় অফিসের প্রধান হলেন আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক। আঞ্চলিক খাদ্যনিয়ন্ত্রকের অধীনে একজন সহকারী আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক, একজন সহকারীরসায়নবিদ এবং কিছু সংখ্যক কর্মচারী রয়েছে। এ অফিসের অধীনে ০৮টি জেলা অফিসরয়েছে। জেলা সমূহে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের অধীনে কার্যক্রম পরিচালিত হয়। খাদ্য বিভাগের প্রধান কার্যালয় ১৬-আব্দুল গণি রোড, ঢাকায় অবস্থিত।     খাদ্য বিভাগ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন -  http://dgfood.gov.bd/   খাদ্য বিভাগের কার্যক্রম ভিডিওতে দেখতে হলে ক্লিক করুন - www.youtube.com   facebook এ রংপুর খাদ্য বিভাগ - RCfood rangpur      

সাধারণ তথ্য

রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও এবং লালমনিরহাট এই আট জেলা নিয়ে রংপুর বিভাগ গঠিত। এই আট জেলায় ৫৮টি উপজেলা রয়েছে।

 

রংপুর বিভাগের জেলা সমূহের ওয়েব এড্রেস, ই-মেইল, টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বর :

(জেলার বিস্তারিত তথ্য জানতে নিম্নোক্ত ওয়েব এড্রেসে ক্লিক করুন)

 

রংপুর :            http://food.rangpur.gov.bd/            ই-মেইল:dcf.rng@dgfood.gov.bd    টেলিফোন: ০৫২১-৬২২৮২,       ফ্যাক্স :০৫২১-৬২৭৪৬

দিনাজপুর :        http://food.dinajpur.gov.bd/           ই-মেইল: dcf.dnj@dgfood.gov.bd    টেলিফোন: ০৫৩১-৬৫০৬৬,    ফ্যাক্স : ০৫৩১-৬৩৮৪৮

ঠাকুরগাঁও :        http://food.thakurgaon.gov.bd/     ই-মেইল:dcf.tkg@dgfood.gov.bd      টেলিফোন: ০৫৬১-৫২০৩০,    ফ্যাক্স : ০৫৬১-৫২৬৭২

পঞ্চগড় :          http://food.panchagarh.gov.bd/       ই-মেইল: dcf.png@dgfood.gov.bd    টেলিফোন: ০৫৬৮-৬১৩১১,   ফ্যাক্স : ০৫৬৮-৬১৬৯৩

নীলফামারী :      http://food.nilphamari.gov.bd/         ই-মেইল: dcf.nlf@dgfood.gov.bd     টেলিফোন: ০৫৫১-৬১৪৪৮,    ফ্যাক্স : ০৫৫১-৬১১২৪

লালমনিরাহাট :   http://food.lalmonirhat.gov.bd/       ই-মেইল:dcf.lmt@dgfood.gov.bd     টেলিফোন: ০৫৯১-৬১৪০৬,   ফ্যাক্স : ০৫৯১-৬১৮৬৮

কুড়িগ্রাম :         http://food.kurigram.gov.bd/          ই-মেইল: dcf.krm@dgfood.gov.bd   টেলিফোন: ০৫৮১-৬১৪৫৩,  ফ্যাক্স : ০৫৮১-৬১১২৮

গাইবান্ধা :         http://food.gaibandha.gov.bd/        ই-মেইল: dcf.gbn@dgfood.gov.bd    টেলিফোন: ০৫৪১-৬১৫২৮,    ফ্যাক্স : ০৫৪১-৬২২০৩

 

০২-১২-২০১৫ খ্রি: তারিখে অত্র বিভাগের সংগ্রহ, মজুদ ও ও.এম.এস প্রতিবেদন

 

 

সাংগঠনিক কাঠামো

কর্মকর্তাবৃন্দ

ছবিনামপদবিফোনমোবাইলইমেইল
আব্দুল্লাহ আল মামুনআঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক, রংপুর বিভাগ, রংপুর।০৫২১-৫২১৪০rcf.rng@dgfood.gov.bd
জনাব মোঃ আনিছুর রহমানসহকারী রসায়নবিদ, রংপুর বিভাগ, রংপুর।০৫২১-৫২১৬০০১৭১৮৩২৩৬০৫rcfrng@yahoo.com

কর্মচারীবৃন্দ

ছবিনামপদবি
জনাব মোঃ আকতার ফারুকপ্রধান সহকারী
জনাব মোঃ আলমোতাসিন বিল্লাহঅফিস সহকারী
জনাব মোঃ শাহাদাত হোসেন,ডাটা এন্ট্রি/কন্ট্রোল অপারেটর
জনাব সৌমিত্র বসাকউপ খাদ্য পরিদর্শক
জনাব মো: কামরুল ইসলামল্যাবরেটরী সহকারী
অপর্না মিত্রঅডিটর
মোছা: হাসনা হেনাসহ- উপ খাদ্য পরিদর্শক

প্রকল্পসমূহ

চলমান প্রকল্পসমূহ

 

যোগাযোগ

শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে অত্র কার্যালেয় অটোরিক্সা/রিক্সাযোগে আগমন করা যায়। ভাড়া : রেল স্টেশন হতে অটোরিক্সা (জনপ্রতি) : ১০/- টাকা রেল স্টেশন হতে রিক্সা : ৩০/- টাকা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল হতে অটোরিক্সা (জনপ্রতি): ১০/- টাকা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল হতে রিক্সা : ৩০/- টাকা । মেডিকেল মোড় থেকে  শহরের অভ্যন্তরের প্রধান সড়ক দিয়ে এসে

পায়রা চত্বর হতে ৫০০ গজ পূর্ব দিকে সরকারি ভোকেশনাল ট্রেনিং ইন্সটিউট এর বিপরীতদিকে অবস্থিত।

 

 

আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়

সেন্ট্রাল রোড

রংপুর বিভাগ,রংপুর,

ফোনঃ ০৫২১-৫২১৪০

ফ্যাক্সঃ ০৫২১-৬১৬৭৯

E-mail : rcf.rng@dgfood.gov.bd

 

কী সেবা কীভাবে পাবেন

২.২ নাগরিক-সেবার তথ্য সারণি

ক্রমিক

নং

সেবা প্রদানকারী অফিসের নাম

              সেবার নাম

দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা / কর্মচারী

সংক্ষেপে সেবা প্রদানের পদ্ধতি

সেবা প্রাপ্তির প্রয়োজনীয় সময়

প্রয়োজনীয় ফি/ ট্যাক্স / আনুষাঙ্গিক খরচ

সংশ্লিষ্ট আইন-কানুন

/ বিধি-বিধান/ নীতিমালা

নির্দিষ্ট সেবা পেতে

ব্যর্থ হলে পরবর্তী

প্রতিকারকারী কর্মকর্তা

০১

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ অফিস

খাদ্য শস্য সংগ্রহ

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, গুদাম কর্মকর্তা

কৃষক তার উৎপাদিত ধান/ গম গুদামে বিক্রির জন্য নিয়ে আসলে গুদাম কর্মকর্তা ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ওজন ও মান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে মূল্য পরিশোধের নিমিত্তে wqsc ( Weight, Quality, Stock Certificate, ওজন ,মান ও মজুদ সার্টিফিকেট) ইস্যু করেন। কৃষক স্থানীয় পেয়িং ব্যাংক হতে wqsc জমা দিয়ে সরাসরি নগদ মূল্য গ্রহণ করেন। একইভাবে মিলার চাল সরবরাহে আগ্রহ প্রকাশ করে আবেদন করলে তার মিলের ক্যাপাসিটি অনুসারে বরাদ্দ দেয়া হয়। নিধার্রিত  সময়ের মধ্যে চাল সরবরাহ করলে একইভাবে মূল্য পরিশোধ করা হয়।

০১ থেকে ০২ দিন

ধান/গমের ক্ষেত্রে খরচবিহীন।

 

তবে চাল ক্রয়ের ক্ষেত্রে চুক্তি সম্পাদনের জন্য ৩০০/- টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প

খাদ্য শস্য (ধান, চাল, গম) সংগ্রহ নীতিমালা ২০১০ এর শর্তানুসারে –

  • ধান ও গমের ক্ষেত্রে কৃষক হিসাবে কৃষি বিভাগের প্রত্যয়ন
  • চালের ক্ষেত্রে লাইসেন্সধারী চুক্তিবদ্ধ মিলার
  • ধান, চাল ও গমের মান সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক / আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক

০২

--

লাইসেন্স ইস্যু

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

ব্যবসায়ীর নিকট থেকে আবেদনপত্র পাওয়ার পর খাদ্য পরিদর্শক  ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন/ যাচাই করে সঠিক তথ্য পাওয়া সাপেক্ষে এবং চালানের মাধ্যমে টাকা জমা দেয়ার পর লাইসেন্স প্রদান করা হয়।

০৪-০৫ দিন

লাইসেন্স ফি-

খুচরা পর্যায়ে= ১,০০০/-টাকা; 

পাইকারী পর্যায়ে=৫,০০০/- টাকা

এস.আর.ও নং-১১২-আইন/ ২০১১

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

০৩

--

ফেয়ার প্রাইস

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

 

একটি উপজেলা/ থানার সকল বিভাগের সরকারি ও আধা সরকারি কর্মচারীগণ এ সেবা পেয়ে থাকে। প্রথমে সকল কর্মচারীদের তালকা করে উপজেলা কমিটিতে সুবিধাভোগী নির্বাচন করা হয়। উপজেলা খাদ্য অফিস সুবিধাভোগীদের নামে ফেয়ার প্রাইস কার্ড তৈরি করে সরবরাহ করে। অত:পর নিয়োগকৃত ডিলারকে ডিও ইস্যুর মাধ্যমে চালানে জমাকৃত টাকার বিপরীতে খাদ্যশস্য প্রদান করা হয়। ডিলার  নির্দিষ্ট স্থানে ও দরে উপজেলা কমিটির অনুমোদিত তালিকা অনুযায়ী জনগণের মাঝে খাদ্যশস্য বিক্রয় /বিতরণ করেন।

সেবা গ্রহণকারী ডিলারের বিক্রয় কেন্দ্রে পৌঁছার পর ১ থেকে ২ ঘন্টা

সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে নির্ধারিত মূল্যে বিতরণ

ফেয়ার প্রাইস নীতিমালা/২০১০ (সংশোধিত)

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

০৪

-

ওএমএস

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

 

নিয়োগকৃত ডিলারকে ডিও ইস্যুর মাধ্যমে চালানে জমাকৃত টাকার বিপরীতে খাদ্যশস্য প্রদান করা হয় এবং খাদ্য শস্যের বিক্রিদর ও বিক্রির নীতিমালা অবহিত করা হয়। ডিলার নির্দিষ্ট স্থানে ও দরে মাষ্টার রোলের মাধ্যমে নিম্ন আয়ের জনগণের মাঝে খাদ্যশস্য বিক্রয় /বিতরণ করে থাকেন

সেবা গ্রহণকারী ডিলারের বিক্রয় কেন্দ্রে পৌঁছার পর ১ থেকে ২ ঘন্টা

সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে নির্ধারিত মূল্যে বিতরণ

ওএমএস নীতিমালা- ২০১২

উপজেলা/জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

প্রদেয় সেবাসমূহের তালিকা

সেবা ক্রমিক নং

সেবার নাম

সেবার ধরণ

সেবার পর্যায়

(মহানগর/ জেলা/ উপজেলা/ ইউনিয়ন)

১।

খাদ্য শস্য সংগ্রহ

সংগ্রহ

উপজেলা/ জেলা

২।

লাইসেন্স ইস্যু, নবায়ন সংক্রান্ত

লাইসেন্স প্রদান

উপজেলা/ জেলা/ মহানগর

৩।

ফেয়ার প্রাইস (নায্যমূল্য)

সরবরাহ

ইউনিয়ন/ উপজেলা/ জেলা/মহানগর

৪।

ওএমএস

সরবরাহ

উপজেলা/ জেলা/ বিভাগ/ মহানগর

সিটিজেন চার্টার

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়,

রংপুর বিভাগ, রংপুর।

E-mail : rcfrng@yahoo.com

 

সিটিজেন চার্টার

 

 

ক্রঃ নং

বিষয়/প্রাসঙ্গিক তথ্য

নাগরিক অধিকার

১।

কর্মকর্তা/কর্মচারী ব্যবস্থাপনাঃ

২৫/০১/২০১০ খ্রিঃ তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নিকারের ১০৪ তম সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সপ্তম প্রশাসনিক বিভাগ হিসেবে রংপুর বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয় ঃ

কর্মরত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের কর্ম সম্পাদন/দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে প্রচলিত আইন বা নিয়ম-নীতির ব্যত্যয় পরিলক্ষিত হলে তা তাৎক্ষণিকভাবে অত্রাফিসসহ অন্যান্য উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের গোচরে আনয়ন করা যেতে পারে।

শ্রেনী

মঞ্জুরীকৃত পদ সংখ্যা

কর্মরত পদ সংখ্যা

প্রথম

৮১

৭৩

দ্বিতীয়

তৃতীয়

৫৩৩

২৮৫

চতুর্থ

৬৭৮

৫৯৯

 

 

 

২।

অভ্যন্তরীন খাদ্যশস্য সংগ্রহঃ

প্রতি বছর জাতীয় লক্ষ্যমাত্রার প্রায় এক’তৃতীয়াংশ খাদ্যশস্য এ বিভাগের ০৮ টি জেলা থেকে সংগৃহিত হয়। এর মধ্যে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও অন্যতম সংগ্রহঘন জেলা। মুলতঃ বোরো চালই বেশী সংগৃহিত হয়। সরকারী লাইসেন্সপ্রাপ্ত বৈধ/উপযুক্ত চালকলের সঙ্গে চুক্তিসূত্রে চাল সংগ্রহ করা হয়। ধান ও গম সংগ্রহ করা হয় সরাসরি কৃষক/উৎপাদক থেকে। অনেকদিন সংরক্ষনোপযোগী নির্ধারিত বিনির্দেশ মোতাবেক পণ্য সংগৃহিত হয়। এ জন্য এ বিভাগের ১ টি সিএসডি ও ৮৮ টি এলএসডি ক্রয়কেন্দ্র হিসাবে কাজ করে। সুষ্ঠু তদারকী ও মনিটরিং এর জন্য বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সংগ্রহ ও মনিটরিং কমিটি আছে। সমন্বিত জাতীয় খাদ্যশস্য সংগ্রহ নীতিমালার আওতায় সংগ্রহাভিযান পরিচালিত হয়। ওজন, মান ও মজুদ সনদ এর মাধ্যমে স্থানীয় পেইং এজেন্ট ব্যাংক শাখা থেকে তাৎক্ষনিকভাবে বিক্রেতা বিক্রিত পণ্যমূল্য পেয়ে থাকেন। উপজেলা/সংগ্রহ কেন্দ্র ভিত্তিক সংগ্রহ লক্ষ্যমাত্রা, সংগ্রহ মূল্য ও সময়সীমাসহ যাবতীয় তথ্যাবলী জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও ব্যবস্থাপক/ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এর দপ্তরে মজুদ থাকে।

এটা জাতীয় প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মসূচী। কৃষক/উৎপাদকদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণ, তাদেরকে পরবর্তী মওসুমে উৎপাদনে উৎসাহীতকরণ ও বিভিন্ন সরকারী খাতে বিতরণ নিরবচ্ছিন্ন রাখতে প্রয়োজনীয় সরকারী মজুদ পড়ে তুলতে এ কার্যক্রম ভূমিকা রাখে। সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক অংশগ্রহন এ কর্মকান্ডের মূল চাবিকাঠি। কৃষক-মিলারগন কোন ভাবে সংগ্রহ কেন্দ্রে বা স্থানীয় খাদ্য অফিসে যে কোন ধরনের ভোগান্তি বা হয়রানির শিকার হলে তাৎক্ষনিকভাবে উর্দ্ধতন অফিস ও জেলা/উপজেলা সংগ্রহ কমিটির সভাপতি যথাক্রমে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের গোচরীভূত করা যেতে পারে।

৩।

সংগৃহিত খাদ্যশস্য সংরক্ষণ, পরিবহন/চলাচলঃ

বিভাগের ১টি সিএসডি (সেন্ট্রাল ষ্টোরেজ ডিপো) ও ৮৮ টি এলএসডি  (লোকাল সাপ্লাই ডিপো) এর সাধারণ কার্যকর ধারণ ক্ষমতা ২,৫০,৬৫০ মেঃ টন। সাম্প্রতিক বাৎসরিক গড় সংগ্রহ প্রায় ৪ লাখ মেঃ টন। বিভিন্ন চ্যানেলে বিভাগের গড় অভ্যন্তরীন বিতরণ চাহিদা প্রায় ১.৫ লাখ মেঃ টনের কিছু বেশী। এ কারণে সংগৃহিত চালের বৃহদাংশ কেন্দ্রীয় চলাচল সূচীর (রেল, নৌ ও সড়কপথ) মাধ্যমে দেশের অন্যান্য ঘাটতি অঞ্চলে পরিবাহিত হয়। এ জন্য জাতীয় চলাচল নীতিমালা ও পরিকল্পনা আছে। বিদেশ থেকে দেশের দু’টি সমুদ্র বন্দরের মাধ্যমে আমদানীকৃত গম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় কেন্দ্রীয় সূচীর বিপরীতে গৃহিত হয়। বিভাগের মধ্যে রেল/বিভাগীয় সড়ক পরিবহন ও জেলার মধ্যে অভ্যন্তরীন সড়ক পরিবহন ঠিকাদারের মাধ্যমে চলাচল করিয়ে মজুদ/চাহিদার সমন্বয় করা হয়। প্রচলিত পিপিআর আইনের আওতায় খোলা দরপত্রের মাধ্যমে পরিবহন ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়। একই পদ্ধতিতে বিভিন্ন ডিপোর শ্রম ও চালনা (হ্যান্ডলিং) ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়। ঠিকাদারীর শ্রেনী/ভিত্তিক নিয়োগকারী/সংগ্রহাক সত্তা (চৎড়পঁৎরহম বহঃরঃু) নিম্নরূপঃ

ঠিকাদার নিয়োগ ও কর্ম পরিচালনা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি সংশ্লিষ্ট সংগ্রহাক সত্তা/নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের দপ্তরে বিদ্যমান থাকে।  অধিকন্তু, এতদ্সংক্রান্ত তথ্যাদি আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর, রংপুর সহ খাদ্য অধিদপ্তরের চলাচল, সংরক্ষণ ও সাইলো বিভাগ হতে অবহিত হওয়ার সুযোগ আছে।

ঠিকাদারীর শ্রেনী

সংগ্রহাকসত্তা (Procuring entity)/নিয়োগকারী

ক) বিভাগীয় সড়ক পরিবহন

    ঠিকাদার (ডিআরটিসি)

আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক,

রাজশাহী বিভাগ, রাজশাহী।

খ) অভ্যন্তরীন সড়ক পরিবহন

    ঠিকাদার (আইআরটিসি)

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

(সংশ্লিষ্ট জেলা)

গ) শ্রম ও হ্যান্ডলিং ঠিকাদার  

    (সিএসডি/এলএসডি)

-ঐ-

 

 

 

৪।

বিভিন্ন ডিপোতে সংরক্ষিত খাদ্যশস্য বিলি-বিতরণঃ

মুলতঃ নিম্নোক্ত আর্থিক/অনার্থিক সরকারী খাতে খাদ্যশস্য বিলি-বিতরণ করা হয়।

বিভিন্ন খাতে বিলি-বিতরণ এবং ওএমএস ডিলার নিয়োগ সংক্রান্ত তথ্য আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর, রংপুর, বিভাগের সকল জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর থেকে অবহিত হওয়া যাবে।

খাতের নাম

ধরণ

সুবিধাভোগী

ক)

ইপি/ওপি (অতি জরুরী/জরুরী গ্রাহক)

আর্থিক

সশস্ত্র বাহিনি, পুলিশ, বিডিআর, আনসার ও ফায়ার সার্ভিস ইত্যাদি।

খ)

ওএমএস (খোলা বাজার বিক্রয়)

 

ওএমএস কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা ও তদারকীর জন্য বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকার গঠিত কমিটি আছে। ওএমএস ডিলার নিয়োগকালে সরকার নির্ধারিত নীতিমালা অনুসৃত হয়।

-ঐ-

সর্বসাধারণ।

গ)

কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা)

অনার্থিক

গ্রামীন জনগোষ্ঠী।

ঘ)

টেষ্ট রিলিফ (টি আর)

-ঐ-

গ্রামীন ও শহুরে জনগোষ্ঠী/প্রতিষ্ঠান।

ঙ)

ভিজিডিপি (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম)

-ঐ-

সুবিধা বঞ্চিত গ্রামীন জনগোষ্ঠী।

চ)

ভিজিএফপি (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং প্রোগ্রাম)

-ঐ-

সুবিধা বঞ্চিত গ্রামীন ও শহুরে জনগোষ্ঠী।

ছ)

জি আর (গ্রাটিশাস রিলিফ)

 

 

-ঐ-

বিভিন্নদৈব দুর্বিপাকে ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণ।

 

 

 

                 
 

 

খাদ্য বিভাগ

  রংপুর অঞ্চল।

ক্রঃ নং

বিষয়/প্রাসঙ্গিক তথ্য

নাগরিক অধিকার

৩।

সংগৃহিত খাদ্যশস্য সংরক্ষণ, পরিবহন/চলাচলঃ

বিভাগের ১টি সিএসডি (সেন্ট্রাল ষ্টোরেজ ডিপো) ও ৮৮ টি এলএসডি  (লোকাল সাপ্লাই ডিপো) এর সাধারণ কার্যকর ধারণ ক্ষমতা ২,৫০,৬৫০ মেঃ টন। সাম্প্রতিক বাৎসরিক গড় সংগ্রহ প্রায় ৪ লাখ মেঃ টন। বিভিন্ন চ্যানেলে বিভাগের গড় অভ্যন্তরীন বিতরণ চাহিদা প্রায় ১.৫ লাখ মেঃ টনের কিছু বেশী। এ কারণে সংগৃহিত চালের বৃহদাংশ কেন্দ্রীয় চলাচল সূচীর (রেল, নৌ ও সড়কপথ) মাধ্যমে দেশের অন্যান্য ঘাটতি অঞ্চলে পরিবাহিত হয়। এ জন্য জাতীয় চলাচল নীতিমালা ও পরিকল্পনা আছে। বিদেশ থেকে দেশের দু’টি সমুদ্র বন্দরের মাধ্যমে আমদানীকৃত গম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় কেন্দ্রীয় সূচীর বিপরীতে গৃহিত হয়। বিভাগের মধ্যে রেল/বিভাগীয় সড়ক পরিবহন ও জেলার মধ্যে অভ্যন্তরীন সড়ক পরিবহন ঠিকাদারের মাধ্যমে চলাচল করিয়ে মজুদ/চাহিদার সমন্বয় করা হয়। প্রচলিত পিপিআর আইনের আওতায় খোলা দরপত্রের মাধ্যমে পরিবহন ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়। একই পদ্ধতিতে বিভিন্ন ডিপোর শ্রম ও চালনা (হ্যান্ডলিং) ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়। ঠিকাদারীর শ্রেনী/ভিত্তিক নিয়োগকারী/সংগ্রহাক সত্তা (চৎড়পঁৎরহম বহঃরঃু) নিম্নরূপঃ

ঠিকাদার নিয়োগ ও কর্ম পরিচালনা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি সংশ্লিষ্ট সংগ্রহাক সত্তা/নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের দপ্তরে বিদ্যমান থাকে।  অধিকন্তু, এতদ্সংক্রান্ত তথ্যাদি আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর, রংপুর সহ খাদ্য অধিদপ্তরের চলাচল, সংরক্ষণ ও সাইলো বিভাগ হতে অবহিত হওয়ার সুযোগ আছে।

ঠিকাদারীর শ্রেনী

সংগ্রহাকসত্তা (Procuring entity)/নিয়োগকারী

ক) বিভাগীয় সড়ক পরিবহন

    ঠিকাদার (ডিআরটিসি)

আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক,

রাজশাহী বিভাগ, রাজশাহী।

খ) অভ্যন্তরীন সড়ক পরিবহন

    ঠিকাদার (আইআরটিসি)

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক

(সংশ্লিষ্ট জেলা)

গ) শ্রম ও হ্যান্ডলিং ঠিকাদার  

    (সিএসডি/এলএসডি)

-ঐ-

 

 

 

৪।

বিভিন্ন ডিপোতে সংরক্ষিত খাদ্যশস্য বিলি-বিতরণঃ

মুলতঃ নিম্নোক্ত আর্থিক/অনার্থিক সরকারী খাতে খাদ্যশস্য বিলি-বিতরণ করা হয়।

বিভিন্ন খাতে বিলি-বিতরণ এবং ওএমএস ডিলার নিয়োগ সংক্রান্ত তথ্য আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর, রংপুর, বিভাগের সকল জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন দপ্তর থেকে অবহিত হওয়া যাবে।

খাতের নাম

ধরণ

সুবিধাভোগী

ক)

ইপি/ওপি (অতি জরুরী/জরুরী গ্রাহক)

আর্থিক

সশস্ত্র বাহিনি, পুলিশ, বিডিআর, আনসার ও ফায়ার সার্ভিস ইত্যাদি।

খ)

ওএমএস (খোলা বাজার বিক্রয়)

 

ওএমএস কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা ও তদারকীর জন্য বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকার গঠিত কমিটি আছে। ওএমএস ডিলার নিয়োগকালে সরকার নির্ধারিত নীতিমালা অনুসৃত হয়।

-ঐ-

সর্বসাধারণ।

গ)

কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা)

অনার্থিক

গ্রামীন জনগোষ্ঠী।

ঘ)

টেষ্ট রিলিফ (টি আর)

-ঐ-

গ্রামীন ও শহুরে জনগোষ্ঠী/প্রতিষ্ঠান।

ঙ)

ভিজিডিপি (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম)

-ঐ-

সুবিধা বঞ্চিত গ্রামীন জনগোষ্ঠী।

চ)

ভিজিএফপি (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং প্রোগ্রাম)

-ঐ-

সুবিধা বঞ্চিত গ্রামীন ও শহুরে জনগোষ্ঠী।

ছ)

জি আর (গ্রাটিশাস রিলিফ)

 

 

-ঐ-

বিভিন্নদৈব দুর্বিপাকে ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণ।

 

 

 

 

 

খাদ্য বিভাগ

  রংপুর অঞ্চল।

তথ্য অধিকার

বিজ্ঞপ্তি

ডাউনলোড